ইসলামিক নাম

আইফাজ নামের বাংলা আরবি ইসলামিক অর্থ কি?

আইফাজ নামের আর্থ কি?

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই? আশা করি আপনারা সবাই ভালো আছেন। আপনি কি আইফাজ নামের অর্থ এবং ইসলামিক আরবি সংস্কৃতিতে এর তাৎপর্য সম্পর্কে জানতে আগ্রহী? যদি তাই হয়, islaminam.com-এ এই আর্টিকেলটি পড়া অপরিহার্য। সন্তানের জন্য একটি নাম নির্ধারণ প্রত্যেক মা-বাবার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ কর্তব্য।

মৃত্যুর পরেও মানুষের নাম বেঁচে থাকে, হাদিসে বলা আছে, ‘হাশরের ময়দানে প্রত্যেককে তার নামেই ডাকা হবে’ (আবু দাউদ: ২/৬৭৬)। আপনি কি ছেলের সন্তানের নাম হিসেবে আইফাজ নামটি পছন্দ করেন? সাম্প্রতিক বছরে, আইফাজ নামটি জনপ্রিয়তা পেয়েছে এমন একটি নাম। সমস্ত জনপ্রিয় নামের মধ্যে, এই নামটি অন্যতম প্রচলিত।

আপনি যদি আপনার ছেলে শিশুর জন্য এই নামটি বেছে নিতে চান, তাহলে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন। এই নামের পেছনের অর্থ সবার জন্য স্পষ্ট নয়। আপনি কি চিন্তা করছেন আইফাজ নাম রাখা যাবে কি? এই নামের অর্থ ও ব্যাখ্যা জানতে এই পোস্টটি পড়ুন।

আইফাজ নামের ইসলামিক অর্থ কি?

আইফাজ নামটি একটি আরবি নাম, এবং এর অর্থ হল সাহায্যকারী, শক্তিশালী এবং বুদ্ধিমান । এই নামটি ইসলামিক সম্প্রদায়ে প্রচলিত। এই নামটি সাধারণভাবে ছেলের নাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

See also  আব্দুলমুহাইমিন নামের অর্থ কি, ইসলামিক আরবি এবং বাংলা অর্থ জানুন

অনেক মাতাবাবা তাদের ছেলে নামকরণে আইফাজ নামটি বেশ পছন্দ করেন।

আইফাজ নামের আরবি বানান

আইফাজ শব্দটি আরবি ভাষা থেকে এসেছে। এটি একটি আরবি নাম যার আরবি বানান إيفاز।

আইফাজ নামের বিস্তারিত বিবরণ

নামআইফাজ
ইংরেজি বানানAifaz
আরবি বানানإيفاز
লিঙ্গছেলে
নামের দৈর্ঘ্য ইংরেজিতে5 বর্ণ এবং 1 শব্দ
আধুনিক নামহ্যাঁ
ছোটো নামহ্যাঁ
বাংলা অর্থসাহায্যকারী, শক্তিশালী এবং বুদ্ধিমান
উৎসআরবি

আইফাজ নামের অর্থ ইংরেজিতে

আইফাজ নামের ইংরেজি অর্থ হলো – Aifaz

আইফাজ কি ইসলামিক নাম?

আইফাজ ইসলামিক পরিভাষার একটি নাম। আইফাজ হলো একটি আরবি শব্দ। আইফাজ নামটি সুন্দর একটি ইসলামিক নাম।

আইফাজ কোন লিঙ্গের নাম?

আইফাজ নামটি ছেলের নাম রাখার ক্ষেত্রে উপযোগী। সাধারণত ছেলের এই নামটি রাখা হয় না।

আইফাজ নামের বানান ইংরেজি ও আরবি

  • ইংরেজি– Aifaz
  • আরবি – إيفاز

আ দিয়ে ছেলেদের ইসলামিক নাম সমূহ:

  • আজবাস
  • আউয়ালান
  • আশরুফ
  • আলমুকাদ্দিম
  • আলবাব
  • আরাশ
  • আখদান
  • আহিল
  • আলমুসাউইর
  • আফদিল আল
  • আবদুলকুদ্দুস
  • আবদুলহান্নান
  • আহরাজ
  • আল্লা
  • আসবাব
  • আবদুলমুবদি
  • আলবার্জ
  • আইজাজ
  • আর্মুন
  • আনজুম বশীর
  • আবুল মাসান
  • আলমে
  • আনোয়ারদ্দিন
  • আকলামাশ
  • আবদআলকাদির
  • আকরাম
  • আবদুলখফিদ
  • আরজাম
  • আবুলআলা
  • আখস
  • আশ্বির
  • আবদুলমুসাওবির
  • আকাস
  • আবদ
  • আবদাল জাবির
  • আবদি
  • আউস
  • আবুল ইয়ুমুন
  • আসমত
  • আইয়ুব খান
  • আবদেলজিম
  • আনিন
  • আরশান
  • আলজাইর
  • আলজাইব
  • আসাদ
  • আমেট
  • আব্দুলরাওফ
  • আইসন
  • আইয়ুব
  • See also  আলামীন নামের অর্থ কি? ইসলামিক আরবি বাংলা অর্থ

    আ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম সমূহ:

  • আত্তিয়া
  • আমানি
  • আফসানা
  • আরিফিন
  • আবদেলা
  • আর্তাহ
  • আসবা
  • আওলা
  • আমারে
  • আওমারী
  • আমানাহ
  • আরা
  • আবরাহা
  • আন্না
  • আননাফি
  • আরশিয়া
  • আনফা
  • আনিয়া
  • আরিন
  • আবি নুবলি
  • আবিদা
  • আশনা
  • আলভা
  • আরসিন
  • আইলিয়াহ
  • আরশাত
  • আনাত
  • আবুহুজাইফা
  • আবতি
  • আরহানা
  • আনআম
  • আনুম
  • আদামা
  • আজান
  • আসবাত
  • আনসাত
  • আনফাস
  • আশফিন
  • আউলা
  • আশিন
  • আরিটুন
  • আশজা
  • আবতাল
  • আরিফুল
  • আলানা
  • আগহা
  • আরিকাহ
  • আহিরা
  • আমানত
  • আম্মু
  • আমাদের অনুরোধ আপনার ছেলের নাম “আইফাজ ” নির্বাচন করার আগে আপনার স্থানীয় মসজিদের ইমাম বা একজন প্রতিষ্ঠিত ইমামের সাথে পরামর্শ করার জন্য সুপার্শ্ব আপনাকে উপযুক্ত ধর্মীয় প্রাধ্যাপকের সাথে যোগাযোগ করা। শুধুমাত্র অনলাইনে “আইফাজ ” নামের অর্থ খোঁজার সাথে সাথে আপনার সন্তানের নাম নির্বাচন করা উচিত নয়, কারণ অমিলের কারণে ভুলে পর্যাপ্ত নয় হতে পারে। অতএব, আমরা আপনাকে “আইফাজ ” নামটি সত্যিই ইসলামিক নাম হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে কিনা এবং এই নামের ব্যবহার করা উপযুক্ত কিনা তা জানতে একটি বিশ্বস্ত ধর্মীয় পরিচায়কের সাথে যোগাযোগ করার পরামর্শ দিচ্ছি।

    নয়ন Avatar

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    পোষ্টটি লিখেছেন যিনিঃ